মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৮:৩৯ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
যুবদলের ৪২ তম প্রতিষ্টা বার্ষিকী আজ : নেতৃত্বে ছিলেন যারা মুজিব জন্ম শতবর্ষ উপলক্ষে কালারমারছড়া ইউনিয়ন পরিষদে দিন ব্যাপি ফ্রি চিকিৎসা সেবা ও বিলামূল্যে ঔষধ বিতরণ ইরফান সেলিমের বাসা থেকে বিদেশি মদ-বিয়ার-অস্ত্র উদ্ধার চকরিয়ায় বখাটের লাথিতে গৃহবধূর ২মাসের গর্বের সন্তান নষ্ট চকরিয়ায় ছেলের হাতে শতবর্ষী বাবা প্রহৃত পেকুয়ায় পিকআপ-অটোরিক্সা সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ৪ জাতীয় পার্টির লামা সাংগঠনিক জেলা শাখার ১ম বর্ষপূর্তি ও কার্যালয় উদ্বোধন মৎস্যজীবিলীগ কক্সবাজার জেলা সভাপতি কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় অভিনন্দন চকরিয়ার সংবাদপত্র এজেন্ট জয়নাল আবেদিনের ইন্তেকালে সংবাদপত্র হকার্স সমিতির গভীর শোক এস কে সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ
ধর্ষকের শাস্তি দাবিতে উত্থাল দেশ

ধর্ষকের শাস্তি দাবিতে উত্থাল দেশ

নিউজডেস্ক:
দেশে একের পর এক ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের প্রতিবাদ এবং এসব ঘটনার দায় নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের পদত্যাগ দাবিতে শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ হয়েছে।
ছাত্র ইউনিয়নের উদ্যোগে সোমবার বেলা ১১টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ এই মোড়ে অবস্থান নেন বিক্ষুব্ধরা। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা ও লেখক, শিল্পী, অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট, নারী অধিকারকর্মী ও সাংবাদিকসহ বিভিন্ন পেশার মানুষ গিয়ে তাদের সঙ্গে সংহতি জানান।
শাহবাগ মোড়ে বিক্ষুব্ধদের অবস্থানে প্রায় দুই ঘণ্টা যান চলাচল বিঘ্নিত হয়। পরে দুপুর আড়াইটার দিকে ছাত্র ইউনিয়নের নেতাকর্মীরা এক পাশে সরে গেলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। এরপরেও বিকাল ৪টা নাগাদ সেখানে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেন তারা।
ধর্ষকদের গ্রেপ্তার ও বিচার দাবিতে শাহবাগ মোড়ে ছাত্র ইউনিয়ন নেতাকর্মীদের অবস্থানে যান চলাচল বিঘ্নিত হয়।
ধর্ষকদের গ্রেপ্তার ও বিচার দাবিতে শাহবাগ মোড়ে ছাত্র ইউনিয়ন নেতাকর্মীদের অবস্থানে যান চলাচল বিঘ্নিত হয়।
বিকালে শাহবাগ থেকে লাঠি মিছিল বের করে এদিনের মতো সেখানে কর্মসূচি শেষ করে ছাত্র ইউনিয়ন। মঙ্গলবারও শাহবাগে অবস্থানের ঘোষণা দিয়ে সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক অনীক রায় বলেন, “আগামীকাল সকাল ১১টায় শাহবাগে আবারও আমরা গণজমায়েত করে ধর্ষণের বিরুদ্ধে আন্দোলন করব।”
নিজেদের দাবি তুলে ধরে ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক বলেন, “দেশে একের পর এক ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের ঘটনা ঘটে চলেছে। আমরা ধর্ষকদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।
“পাশাপাশি এসব ঘটনার দায় নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করছি, যাতে তার পদত্যাগের মধ্য দিয়ে একটা বার্তা যায় যে এ ধরনের ঘটনা সমাজে চলতে পারে না।”
নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এক নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন এবং ধর্ষণ-নিপীড়নের সাম্প্রতিক বিভিন্ন ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার ঢাকার শাহবাগে ‘ধর্ষণ ও নিপীড়ন বিরোধী ছাত্র-জনতা’র ব্যানারে মানববন্ধন। ছবি: মাহমুদ জামান অভি
নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এক নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন এবং ধর্ষণ-নিপীড়নের সাম্প্রতিক বিভিন্ন ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার ঢাকার শাহবাগে ‘ধর্ষণ ও নিপীড়ন বিরোধী ছাত্র-জনতা’র ব্যানারে মানববন্ধন। ছবি: মাহমুদ জামান অভি
ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি ও অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট বাকী বিল্লাহ শুধু স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগে সমাধান দেখছেন না, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শেখ হাসিনারও পদত্যাগ দাবি করেছেন তিনি।
বাকী বিল্লাহ বলেন, “জবাবদিহিহীন এককেন্দ্রিক নিরঙ্কুশ ক্ষমতার চর্চা চলছে, তাতেই এভাবে একের পর এক ধর্ষণ-নারী নির্যাতনের ঘটনা ঘটে চলেছে।”
বিক্ষোভে সংহতি জানিয়ে গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি বলেন, “নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে যে ঘটনা ঘটেছে এতে আমরা শিউরে উঠি। সবচেয়ে দুর্ভাগ্যের ব্যাপার হচ্ছে এই বাংলাদেশে এসব ঘটনা নতুন নয়, প্রতিদিন এক একটা ঘটনা ঘটছে। আমাদের আতঙ্ক কাটতে না কাটতেই পরদিন তার চেয়েও ভয়াবহ ঘটনার কথা শুনি। ধর্ষণ একটা বীভৎস ঘটনা নয়, বরং এটি ক্ষমতার বীভৎস প্রদর্শনী।
“এটা কেবলমাত্র ব্যক্তির ক্ষমতা নয়, বরং ব্যক্তি একটি রাষ্ট্রে সামাজিক রাজনৈতিকভাবে যে ক্ষমতা ভোগ করে বিশেষ করে পুরুষতান্ত্রিক রাষ্ট্র ব্যবস্থার কারণে যে ক্ষমতা ভোগ করে, এই ক্ষমতার উৎস হিসেবে আমরা ঘটনা দেখতে পাই।”
নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এক নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন এবং ধর্ষণ-নিপীড়নের সাম্প্রতিক বিভিন্ন ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার ঢাকার শাহবাগে ‘ধর্ষণ ও নিপীড়ন বিরোধী ছাত্র-জনতা’র ব্যানারে মানববন্ধন। ছবি: মাহমুদ জামান অভি
নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এক নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন এবং ধর্ষণ-নিপীড়নের সাম্প্রতিক বিভিন্ন ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার ঢাকার শাহবাগে ‘ধর্ষণ ও নিপীড়ন বিরোধী ছাত্র-জনতা’র ব্যানারে মানববন্ধন। ছবি: মাহমুদ জামান অভি
তিনি বলেন, “একদিকে ক্ষমতার পৃষ্ঠপোষকতা, অন্যদিকে বিচারহীনতা- যে কারণে ধর্ষণকারী, যারা যৌন নিপীড়নকারী তারা ঘরে বাইরে নারীকে নির্যাতন করছে। এটা যেন তাদের অধিকার।”
ধর্ষণে সর্বোচ্চ শাস্তি চেয়ে গণতান্ত্রিক বামজোটের কেন্দ্রীয় সমন্বয়ক বজলুর রশীদ ফিরোজ বলেন, “আজকে আইনের ফাঁক ফোকর গলে ধর্ষকরা বেরিয়ে যাচ্ছে। তাই আজকে আইনের পরিবর্তন করে ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড নিশ্চিত করতে হবে।”
বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি-সিপিবির প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুল্লাহ আল কাফি রতন বলেন, “আজকে পাহাড়ে সমতলের নানা জায়গায় আমরা ধর্ষণের ঘটনা দেখতে পাচ্ছি। কিন্তু এ সরকার নিস্ক্রিয়, তাদের আশ্রয়-প্রশ্রয়ে সারা দেশে এসব নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে। নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে সারা দেশ উত্তাল হলেও এ সরকার নির্বিকার।”
নোয়াখালীতে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের প্রতিবাদে শাহবাগে নুরুল হক নূরদের সমাবেশ।
নোয়াখালীতে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের প্রতিবাদে শাহবাগে নুরুল হক নূরদের সমাবেশ।
নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদও। বেলা ১টার দিকে শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে ‘ধর্ষণ ও নিপীড়ন বিরোধী ছাত্র-জনতা’ ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করে তারা।
সমাবেশে ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর বলেন, “এই গণধর্ষণের ঘটনা দেশের আইনি ব্যবস্থার মুখোশ খুলে দিচ্ছে। আজকে এই আওয়ামী লীগ দীর্ঘ দিন ধরে ক্ষমতায় থেকে রাষ্ট্রের সব বিভাগে একটা দুর্বৃত্তায়ন তৈরি করেছে। আজকে ছাত্রলীগ ধর্ষণ করে, যুবলীগ ধর্ষণ করে, আওয়ামী লীগ টাকা পাচার করে। আজকে যে দেলোয়ার, কালাম ধর্ষণের ঘটনা ঘটিয়েছে তারা সবাই সরকারকে ক্ষমতায় রাখার জন্য দা-চাপাতি নিয়ে ভোটকেন্দ্র দখল করেছে। তাই সরকারও বিনিময়ে তাদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়েছে।”
নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনায় জড়িতদের শাস্তির দাবিতে দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ করেছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলও। বিএনপির ছাত্র সংগঠনটির নেতাকর্মীরা ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। মিছিলটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে টিএসসির রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে সমাবেশে মিলিত হয়।
এ সময় ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল, বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি মো. রাকিবুল হাসান ও সাধারণ সম্পাদক আমানুল্লাহ আমানসহ কেন্দ্রীয় ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখার শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
সমাবেশে ছাত্রদল সভাপতি খোকন বলেন, “আজকে বাংলাদেশে ধর্ষণের ঘটনা যদি পর্যবেক্ষণ করা হয় তাহলে দেখা যাবে প্রতিটি ঘটনায় ছাত্রলীগ এবং আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে জড়িত। আজকে যদি ধর্ষণের সঠিক বিচার করা হয় তাহলে আওয়ামী লীগ এবং ছাত্রলীগ নেতৃত্বশুন্য হয়ে পড়বে।
“নোয়াখালীতে যে ঘটনা ঘটেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের পক্ষ থেকে আমরা তীব্র নিন্দা জানাই এবং এই ঘটনার বিচারের দাবি জানাই।”
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম.

Please Share This Post in Your Social Media

চকরিয়া চক্ষু হাসপাতালে বিজ্ঞাপন


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2020 aponbangla.com
Desing & Developed BY ctghostbd.biz