শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:১১ অপরাহ্ন
Title :
চকরিয়ায় ওয়াটার মার্চ ও নারী-পুরুষের মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত নাইক্ষ্যংছড়িতে দূর্নীতি বিরোধী দিবস পালিত পেকুয়ায় টিভিতে খেলা দেখা নিয়ে দর্শকদের মধ্যে মারপিট, আহত-১ নাইক্ষ্যংছড়িতে ৪৭ কোটি টাতার উন্নয়প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন পার্বত্য মন্ত্রী পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি বাইশারীতে আসছেন বৃহস্পতিবার ফাইতং ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন কোম্পানি আর নেই, শোকাহত মানুষের ঢল চরম দূর্ভোগে নাইক্ষ্যংছড়ি সড়কের লাখ লাখ যাত্রী,পার্বত্য মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা High class escort poland camcontacts – porno tube ungdoms kvinne søker menn দেশ সেরা প্রতিবন্ধী এ্যাওয়ার্ড পেলেন পেকুয়ার মো: হাসান রব্বানী Thai massasje oslo sentrum escort luleå | best nude massage stavanger eskorte
বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রামের কলেজিয়েট স্কুলে দুইদিন ব্যাপী নিরাপদ খাদ্য বিষয়ে প্রচারনা কর্মসূচি সমাপ্ত

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ২০৬ Time View
সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:

চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার(উন্নয়ন) ও নব নিযুক্ত রোহিঙ্গা শরনার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবর্তন কমিশনার মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেছেন শিক্ষা মানুষের দক্ষতা বাড়ায়, কিন্তু অন্যের সমস্যায় ব্যতিত ও বেদনাহত হওয়া শেখায় না। ফলে শিক্ষিত মানুষগুলো মানুষের কষ্ঠে ব্যতিত হচ্ছে না। দুর্নীতির মাধ্যমে বিপুল পরিমান অর্থ আত্মসাৎ করছে, অনেকে আবার পণ্যমূল্য বাড়িয়ে, সরবরাহ লাইনে কৃত্রিম সংকট তৈরী করে সমাজকে অস্থির করছে। সামাজিক সংস্কৃতির মূল্যবোধ মানুষকে অন্যের প্রতি মমত্ববোধ ও মানবিকতা জাগরুগ করতে শেখায়। আজকে যারা মাধ্যমিক স্তরের শির্ক্ষাথী তারা ২০৪১ সালে দেশের নেতৃত্ব প্রদান করবে। তাই তারা যদি সত্যিকারের মানবিক গুনাবলী সম্পন্ন মানুষ হতে না পারে তাহলে ২০৪১ সালে উন্নত বাংলাদেশ ও মানবিক সমাজ বির্নিমান সম্ভব নয়। তিনি আরও বলেন খাদ্যে ভেজাল এখন একটি মারাত্মক সামাজিক ব্যাধিতে পরিনত হয়েছে। মানুষ না খেয়ে মরছে না। প্রাণঘাতি নানা রোগ এখন খাদ্যে ভেজালের কারনে ঘটছে। যার কারনে যারা পাশর্^বর্তী দেশ ভারতে যাচ্ছে তাদের ৮৩ শতাংশ মানুষই চিকিৎসার জন্য যাচ্ছেন। আবার বিদেশী সংস্কৃতির কেএফসি, পিৎজা, ফুডপান্ডা ও কোমলপানীয়সহ নানা ধরনের ফাস্টফুডে আসক্তির সংখ্যাও ক্রমাগত বাড়ছে। আর এভাবেই নিজের অজান্তেই বিপুল পরিমান অর্থ বিদেশে পাচার হচ্ছে। ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ইং নগরীর চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুলে ক্যাব যুব গ্রুপ চট্টগ্রাম মহানগরের উদ্যোগে দুইদিন ব্যাপী “মায়ের দেয়া বাসায় তৈরী টিফিন খাবো, বাইরে খোলা ও অস্বাস্থ্যকর খাবার বর্জন করবো” শিরোনামে নিরাপদ খাদ্য বিষয়ে প্রচারনা কর্মসূচির সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত মন্তব্য করেন।

কলেজিয়েট স্কুলের প্রধান শিক্ষক মুহাম্মদ সিরাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে ক্যাব বিভাগীয় সমন্বয়কারী শম্পা কে নাহার ও সংগঠক জহুরুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ক্যাব কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি এস এম নাজের হোসাইন, জাতীয় ভোক্তা সংরক্ষন অধিদপ্তরের বিভাগীয় উপ-পরিচালক মোঃ ফয়েজউল্যাহ, চট্টগ্রাম ডায়বেটিক জেনারেল হাসপাতালের সাবেক উপ-পরিচালক পুষ্টিবিদ হাসিনা আকতার লিপি, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি এম নাসিরুল হক। আলোচনায় অংশনেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সাবেক কাউন্সিলর আবিদা আজাদ, সাফা মোতালেব কলেজ পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি হাজী আবু তাহের, ক্যাব মহানগরের সাংগঠনিক সম্পাদক জন্নাতুল ফেরদৌস, ক্যাব পাঁচলাইশের সাধারন সম্পাদক মোঃ সেলিম জাহাঙ্গীর, সদরঘাট থানা সভাপতি শাহীন চৌধুরী, ক্যাব চাঁন্দগাও থানা সভাপতি মোঃ জানে আলম, ক্যাব মহানগরের সভাপতি আবু হানিফ নোমান, ক্যাব যুব গ্রুপের সাধারন সম্পাদক অংসাহ্লা মার্মা, যুগ্ন সম্পাদক আমজাদুল হক আয়েজ, সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ আবরার সুজন আয়ান, প্রচার সম্পাদক ইমদাদুল ইসলাম, সহ-প্রচার সম্পাদক রাসেল উদ্দীন, দপ্তর সম্পাদক আবুল কালাম, সহ-দপ্তর সম্পাদক মোঃ শাহরিয়ার আলম তৌসিফ, সদস্য নাঈম মুহাম্মদ নিশা, সালমান রশিদ অভি প্রমুখ।

তিনি আরও বলেন মা পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ আল্লাহর নেয়ামত। সন্তানের কল্যান কামনায় যিনি সর্বদা মগ্ন থাকেন, তিনি মা। মা যে টিফিন সন্তানকে দিবনে, সেটা পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ টিফিন হবে। কারন মা টিফিন তৈরী করেন মমতা ও ভালবাসা দিয়ে, সেখানে কোন লৌকিকতা ও মুনাফা লাভের মনোবৃত্তি নাই। তাই মায়ের দেয়া টিফিন নিয়ে বাইরের খোলা ও অস্বাস্থ্যকর টিফিন বর্জন করতে হবে।

বক্তারা আরও বলেন সুস্থ ও মেধাবী জাতি গঠনে নিরাপদ ও সুষম খাদ্যের বিকল্প নাই। আগামি প্রজন্মকে সুস্থ, সবল রাখতে ও মেধাবী হিসাবে গড়ে তুলতে ভেজালমুক্ত নিরাপদ খাদ্য গ্রহন এবং দেশীয় ফল, শাক সবজি গ্রহনে সামাজিক আন্দোলনের বিকল্প নাই। কারন ভেজাল ও জাঙ্কফুড জাতীয় খাবার গ্রহনের কারনে শিশুরা অমনোযোগী, বখাটে, স্থুল ও রোগাক্রান্ত হচ্ছে। আবার খোলা, ধুলা-বালি, দুষিত পানি ব্যবহার ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরী খাবার গ্রহনের কারনে ডায়রিয়া, পেটের পীড়া, জন্ডিস, হাপানী, ডায়বেটিস, ক্যান্সার, হ্দরোগসহ নানা প্রাণঘাতি রোগের আক্রমণ ক্রমাগত বাড়ছে। আর জাঙ্কফুডে প্রয়োজনীয় খাদ্য-পুষ্ঠি নাই, প্রচুর চর্বি, চিনি ও লবনের আধিক্য। সেকারনে আলুর চিপস, ক্যান্ডি, পিৎজা, বার্গার, চমুসা, সিঙ্গারা, ফুসকা, কোমল পানীয়তে প্রচুর পরিমানে পরিশোধিত কার্বোহাইড্রেড, চর্বি ও সোডিয়াম থাকায় অস্বাভাবিক স্থুলতা, বিভিন্ন দীর্ঘমেয়াদী রোগ টাইপ২ ডায়বেটিস, ক্যান্সার, কার্ডিওভাসকুলার ডিজিস, লিভার রোগের সংক্রমন প্রচন্ড আকারে বাড়ছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2022
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com